শনিবার ২৮ জানুয়ারি ২০২৩ ১৪ মাঘ ১৪২৯

নতুন বছর নিয়ে যে বার্তা দিলেন শায়খ আহমাদুল্লাহ
স্বদেশ ডেস্ক
প্রকাশ: শনিবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২, ৪:০০ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

নতুন বছর নিয়ে যে বার্তা দিলেন শায়খ আহমাদুল্লাহ

নতুন বছর নিয়ে যে বার্তা দিলেন শায়খ আহমাদুল্লাহ

নববর্ষ মানে শুধু নতুনের আগমন নয়, জীবন থেকে পুরনো বছরের বিদায়ও। জ্ঞানী ব্যক্তি, যিনি নতুন বছর উদযাপনের আগে হারানো বছরের শোক করেন।

দিন যত গড়াচ্ছে, থার্টি ফার্স্ট নাইটের উন্মাদনা বাড়ছে। ডিজে পার্টি, অশ্লীল যৌনতা এবং মদ্যপানের সাথে যোগ হয়েছে জোরে আতশবাজি, পটকা ও লণ্ঠনের উপসংস্কৃতি।

গত বছর থার্টি ফার্স্ট নাইটে তিনটি মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। চিয়ারলিডারদের কর্কশ শব্দ একটি নিষ্পাপ শিশুর প্রাণ কেড়ে নেয়। একটি দরিদ্র মহিলার প্লাস্টিক কারখানাটি লণ্ঠনের কারণে আগুনে পুড়ে গেছে এবং ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, এক ঝাঁক পাখি, আতশবাজির বিকট শব্দে ভীত হয়ে, একটি বাড়ির ড্রয়িংরুমে প্রবেশ করে এবং অবিরামভাবে তাদের ডানা ঝাপটায়।

পাখিরা প্রকৃতির সৌন্দর্য সবুজ গাছের ডালে পাখি কিচিরমিচির করবে, এটাই সৃষ্টির নিয়ম ও সৌন্দর্য। তবে উৎসবের নামে এই অযৌক্তিক উন্মাদনার কারণে ধ্বংস হচ্ছে আমাদের পরিবেশ ও প্রাণী বৈচিত্র্য।

নতুন বছরের আগমন যদি আনন্দের কারণ হয়, তবে পুরনো বছরের বিদায় যেন বেদনার কারণ হয়। যারা নববর্ষের আনন্দ উদযাপন করেন তারা কি কখনো হারানো বছরের জন্য বেদনা অনুভব করেন?

ঈশ্বর মানুষকে বিবেক দিয়ে সৃষ্টি করেছেন। বিবেকবান মানুষের নির্মম উন্মাদনায় যদি পাখিরা ভয়ে ডানা ঝাপটায়, যদি রাস্তার কুকুর ভয়ে পালায়, যদি লণ্ঠনের আগুনে গরীবের মাথার আস্তানা ছাই হয়ে যায়, যদি আতশবাজির বিকট শব্দে মায়ের কোল খালি করে, তাহলে মানুষ, তোমার শ্রেষ্ঠত্ব কোথায়!

স্বদেশপ্রতিদিন/ইমরান

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।
ফোন: +৮৮০২-৮৮৩২৬৮৪-৬, মোবাইল: ০১৪০৪-৪৯৯৭৭২। ই-মেইল : e-mail: swadeshnewsbd24@gmail.com, info@swadeshpratidin.com
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।