শনিবার ২৮ জানুয়ারি ২০২৩ ১৪ মাঘ ১৪২৯

সঠিক সময়ে স্কুলে উপস্থিত না থাকায় ৮ শিক্ষক শোকজ
শরিফুল ইসলাম, নীলফামারী:
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২২, ৭:১২ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

সঠিক সময়ে স্কুলে উপস্থিত না থাকায় ৮ শিক্ষক শোকজ

সঠিক সময়ে স্কুলে উপস্থিত না থাকায় ৮ শিক্ষক শোকজ

নীলফামারীর ডোমারে দুটি বিদ্যালয়ে সঠিক সময়ে উপস্থিত না থাকায় ৮ জন শিক্ষককে শোকজ করা হয়েছে। 

বুধবার (৭ ডিসেম্বর) বিকেলে উপজেলার চিকনমাটি ১ নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৬ জন শিক্ষক ও চিকনমাটি দোলাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২ জন শিক্ষককে শোকজ করেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: নবেজ উদ্দিন সরকার।

এর আগে সকালে উপজেলার চিকনমাটি ১ নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বুধবার সকাল ৯ টা ২০ মিনিটে পরিদর্শনে যান ওই  প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা। এসময় নৈশ্য প্রহরী বিদ্যালয় খুললেও উপস্থিত ছিল না কোন শিক্ষক-ছাত্রছাত্রী। এর কিছুক্ষণ পর তিনি চিকনমাটি দোলাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পরিদর্শনে যান। সেখানেও তিন জন শিক্ষক উপস্থিত থাকলেও দুই জন শিক্ষক অনুপস্থিত ছিলেন।
 
শোকজপ্রাপ্ত শিক্ষকরা হলেন- চিকনমাটি ১ নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শাহ আলম, সহকারী শিক্ষক মনির উদ্দিন, আরতি রানী, রোকসানা আক্তার, জুলফি আরা বেগম, সাবিনা ইয়াছমিন ও চিকনমাটি দোলাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হালিমা বেগম, কল্পনা বেগম।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, বিদ্যালয়ের নৈশ্য প্রহরী বুধবার সকাল ৯ টার মধ্যে বিদ্যালয় খুলেন। আর সকাল ৯টা ২০ মিনিটে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. নবেজ উদ্দিন সরকার পরিদর্শনে যান। তখন তিনি কোন শিক্ষক ও ছাত্রকে বিদ্যালয়ে দেখতে পাননি। তিনি কিছুক্ষণ সেখানে থেকে চিকনমাটি দোলাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যান। বিকালে তিনি চিকনমাটি ১ নং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৬জন ও চিকনমাটি দোলাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২জন সহকারী শিক্ষককে শোকজ করে চিঠি পাঠান। সঠিক সময়ে বিদ্যালয়ে উপস্থিত না হওয়ায় কেন তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না মর্মে তিন কার্যদিবসের মধ্যে জবাব চাওয়া হয়েছে তাদের কাছে।

চিকনমাটি ১ নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: শাহ আলম বলেন, স্যার গতকাল ৯টা ১৮ মিনিটে আমাদের বিদ্যালয়ে এসে ২ মিনিট থেকে চলে যান। আমি ৯ টা ২৬ মিনিটে বিদ্যালয়ে আসি। অন্যান্য শিক্ষকরা ২/৩ মিনিটের মধ্যে চলে আসে। আমরা শোকজের চিঠি পেয়েছি। ৩ দিনের মধ্যে চিঠির জবাব দিতে হবে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. নবেজ উদ্দিন সরকার বলেন, আমি সকাল ৯ টা ২০ মিনিটে ওই বিদ্যালয়ে পরিদর্শনে যাই। তখন শুধু নৈশ্য প্রহরী বিদ্যালয়ে ছিল। ছাত্র শিক্ষক কেউ ছিল না। বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষকে শোকজ করা হয়েছে। অন্য আরেকটি বিদ্যালয়ে গিয়েছিলাম সেখানে তিন জন শিক্ষক উপস্থিত থাকলেও দুই জন শিক্ষক আমি যাওয়ার পর তারা বিদ্যালয়ে আসে। তাদেরও শোকজ করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের মাঝেমধ্যে সকালে বিদ্যালয় পরিদর্শনে যাওয়া উচিত। তাদের কাজটা আমাকে করতে হচ্ছে।

স্বদেশপ্রতিদিন/এমএস 


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।
ফোন: +৮৮০২-৮৮৩২৬৮৪-৬, মোবাইল: ০১৪০৪-৪৯৯৭৭২। ই-মেইল : e-mail: swadeshnewsbd24@gmail.com, info@swadeshpratidin.com
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।