রোববার ২৭ নভেম্বর ২০২২ ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

করতোয়া ট্র্যাজেডি: পঞ্চম দিনেও চলছে উদ্ধার অভিযান
পঞ্চগড় প্রতিনিধি
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১২:৫৪ পিএম আপডেট: ২৯.০৯.২০২২ ৪:৪২ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

করতোয়া ট্র্যাজেডি: পঞ্চম দিনেও চলছে উদ্ধার অভিযান

করতোয়া ট্র্যাজেডি: পঞ্চম দিনেও চলছে উদ্ধার অভিযান

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় করতোয়া নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজদের সন্ধানে পঞ্চম দিনের মতো অভিযান শুরু করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ভোর ৫টা থেকে অভিযান শুরু হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (বেলা ১২টা) নৌকাডুবিতে নিখোঁজ কাউকে উদ্ধারের খবর পাওয়া যায়নি।

নৌকাডুবির ঘটনায় সর্বশেষ বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকেল পর্যন্ত ৬৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের জরুরি তথ্য কেন্দ্রের তথ্য মতে, ৬৯ জনের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ডুবে যাওয়া নৌকাটিতে ঠিক কতজন যাত্রী ছিল, তার সঠিক তথ্য এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। তবে এখনো তিনজন নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানা গেছে।

এদিকে নৌকাডুবিতে ৬৯ জনের মৃত্যুতে এলাকাজুড়ে মাতম চলছে। স্বজনদের আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠেছে করতোয়া নদীর আউলিয়া ঘাটের বাতাস। লাশের খোঁজে মাড়েয়া বামনহাট ইউনিয়ন পরিষদের জরুরি তথ্য কেন্দ্রে ভিড় করছেন নিখোঁজদের স্বজনরা।

পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক দীপঙ্কর কুমার রায় বলেন, এখন পর্যন্ত ৬৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছে আরও তিনজন। আজ ভোর ৫টা থেকে পঞ্চম দিনের মতো অভিযান শুরু হয়েছে। এখন পর্যন্ত কাউকে উদ্ধার করা যায়নি। একজন মানুষ নিখোঁজ থাকলেও আমাদের উদ্ধার কাজ অব্যাহত থাকবে।

স্বদেশপ্রতিদিন/ইমরান

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।
ফোন: +৮৮০২-৮৮৩২৬৮৪-৬, মোবাইল: ০১৪০৪-৪৯৯৭৭২। ই-মেইল : e-mail: swadeshnewsbd24@gmail.com, info@swadeshpratidin.com
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।