রোববার ১৩ জুন ২০২১ ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

রাত ৩টায় ক্লাস নিলেন ভিসি কলিমউল্লাহ
নিজস্ব প্রতিবেদক :
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১, ৫:০৪ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

ভিসি কলিমুুল্লাহ্

ভিসি কলিমুুল্লাহ্

একের পর এক বিতর্কের জন্ম দিয়ে যাচ্ছেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) সদ্য বিদায়ী উপাচার্য নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহর। নিজের কর্মকাণ্ডে সমালোচিত হয়ে যাচ্ছেন তিনি। এবার রাত ৩টায় ক্লাস নিয়ে তিনি নতুন বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন।

বুধবার (৯ জুন) রাত ৩টা ২০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের জেন্ডার অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের ২০১৯-২০ইং শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষ দ্বিতীয় সেমিস্টারের 'পলিটিকাল থট' কোর্সের ক্লাস নেন তিনি। এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে এবং বাইরে চলছে সমালোচনার ঝড়।

জানা যায়, বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের 'পলিটিকাল থট' কোর্সের ক্লাস নেয়ার কথা ছিল কলিমউল্লাহর। কিন্তু তখন ওই কোর্সের ক্লাস রাত ৩টায় নেয়ার কথা জানান তিনি। এরপর অনলাইন প্লাটফর্ম গুগল মিট-এ রাত ৩টা ২০ মিনিটে ক্লাস শুরু হয়। প্রায় ৩৫ মিনিট চলে ক্লাস। শুরুতে প্রায় ২৮ জনের মতো যুক্ত থাকতে পারলেও শেষ পর্যন্ত যুক্ত থাকার সংখ্যা দাড়ায় প্রায় ১২ জনের মতো। রাত প্রায় ৩টা ৫৫ মিনিটে ক্লাস শেষ করেন তিনি।

গভীর রাতে ক্লাস নেয়ার ঘটনায় ক্যাম্পাস এবং বাইরে চলছে ব্যাপক সমালোচনা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকেই।

এত রাতে ক্লাস নেয়া কলিমউল্লাহর কাছে নতুন নয়। এর আগেও মধ্য রাতে ক্লাস নিয়ে সমালোচনায় এসেছিলেন ভিসি কলিমউল্লাহ। পরে তীব্র সমালোচনার মুখে রাতে ক্লাস নেয়া বন্ধ করেন তিনি।

এ বিষয়ে ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. মতিউর রহমান বলেন, এটি কোনো সুস্থ মানুষের কাজ হতে পারে না। তার আসলে মানসিক চিকিৎসার প্রয়োজন।

এ ব্যাপারে জানতে অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহর মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি রিসিভ করেনি।

বেরোবি স্টুডেন্ট রাইটস ফোরামের সাধারণ সম্পাদক বায়েজিদ আহমেদ বলেন, আমরা করোনাকালীন বারবার অনলাইন ক্লাস চেয়েছি। পাইনি। এখন এই সময়ে এসে অনেকেই স্ব শরীরে পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নিলেও আমাদের ক্যাম্পাসে অনলাইনে ক্লাস নেয়া শুরু করছে।

বেরোবি বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ উপাচার্য হিসেবে জোগ দেন কলিমউল্লাহ। নিজের মেয়াদে বিভিন্ন বিভাগের প্রায় অর্ধশতাধিক কোর্সের ক্লাস নিয়েছেন তিনি। তবে এসব কোর্সে সর্বোচ্চ এক থেকে দুইটি ক্লাস নিয়েছেন এই ভিসি। আর পরীক্ষার খাতা কর্মচারী দিয়ে মূল্যায়ন ও পরীক্ষায় অনুপস্থিত শিক্ষার্থীকেও মার্কস দেয়ার অভিযোগ রয়েছে কলিমউল্লাহর বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, এসব কোর্স বাবদ মোটা অঙ্কের পারিতোষিকও নেয়ার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

স্বদেশ প্রতিদিন/এস

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন

প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।
ফোন: ৯৮৫১৬২০, ৮৮৩২৬৪-৬, ফ্যাক্স: ৮৮০-২-৯৮৯৩২৯৫। ই-মেইল : e-mail: [email protected], [email protected]
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।