রোববার ১৬ মে ২০২১ ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

অভিনেতা ফারুকের শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে ভালো
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশ: শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১, ৭:৫৯ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

অভিনেতা ফারুকের শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে ভালো

অভিনেতা ফারুকের শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে ভালো

সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন অভিনেতা ও সংসদ সদস্য (এমপি) আকবর হোসেন পাঠান ফারুক। গত ২১ মার্চ থেকে ওই হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রয়েছেন তিনি। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা অনেকটা উন্নতির দিকে বলে পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

ফারুকের ছেলে রোশান হোসেন পাঠান বলেন, 'বাবা আগের চেয়ে ভালো আছেন। সেভাবে তো কথা বলতে পারছেন না। তবে শারীরিক অবস্থা উন্নতি হচ্ছে। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন।'

গত মাসে নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য সিঙ্গাপুরে যান আকবর হোসেন পাঠান ফারুক। সেখানে পরীক্ষা করার পর রক্তে সংক্রমণ ধরা পড়ে। এরপর থেকে তার শারীরিক অবস্থা অবনতি হতে থাকে। শারীরিক অবস্থা আরও খারাপ হলে ফারুককে আইসিইউতে নেওয়া হয়। এর পর ২৩ মার্চ পর্যন্ত অবচেতন অবস্থায় ছিলেন তিনি। 

গত কয়েক বছর ধরে অসুস্থ তিনি। বেশ কয়েকবার সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। সেখানে কিডনি বিশেষজ্ঞ ডা. লাইয়ের তত্ত্বাবধানে তিনি চিকিৎসা নেন।

উল্লেখ্য, ৮ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) বিকেল থেকে হঠাৎ গুজব রটে ‘মিয়া ভাই’ খ্যাত এ অভিনেতা মারা গেছেন। মুহূর্তেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি ছড়িয়ে পড়ে। কিন্তু মৃত্যুর সংবাদটি মিথ্যা বলে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছিলেন অভিনেতার ছেলে রোশান হোসেন পাঠান। 

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন

প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।
ফোন: ৯৮৫১৬২০, ৮৮৩২৬৪-৬, ফ্যাক্স: ৮৮০-২-৯৮৯৩২৯৫। ই-মেইল : e-mail: [email protected], [email protected]
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।