বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১ ৩০ চৈত্র ১৪২৭

১৯ বছর পর আরিচা-কাজিরহাট নৌরুটে ফেরি চলাচল
মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশ: শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:৩৯ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

সংগৃহীত ছবি

সংগৃহীত ছবি

দেড় যুগের বেশি সময় পর আবারো আরিচা-কাজিরহাট নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে। এতে স্থানীয়দের দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ হয়েছে। 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিআইডব্লিউটিসির আরিচা অঞ্চলের মেরিন বিভাগের এজিএম মো. সাত্তার মিয়া।

এর আগে মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) দুপুর আড়াইটা দিকে পরীক্ষামূলকভাবে ফেরি পরিচালনা করছে বিআইডব্লিটিসির মেরিন বিভাগ।

মো. সাত্তার মিয়া জানিয়েছিলেন, ২০২১ সালের জানুয়ারিতে আরিচা-কাজিরহাট নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরুর কথা ছিল। কিন্তু ড্রেজিং কাজসহ ঘাট সংস্কারের কাজ বিলম্ব হওয়ার ফেব্রুয়ারিতে ফেরি চলাচল শুরু হতে পারে। পরীক্ষামূলক ফেরি চালুর জন্য পাটুরিয়া থেকে বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান নামে একটি ফেরি কাজিরহাটের দিকে যাত্রা করেছে। খুব শিগগিরই এ নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু হবে। 
 
উল্লেখ্য, কর্ণফুলি নামের একটি ফেরিতে একটি গাড়ির মাধ্যমে আরিচা-দৌলতদিয়া ও আরিচা-নগরবাড়ি নৌঘাটের যাত্রা শুরু হয় ১৯৬৩ সালের ৩১ মার্চ। তখন ওই গাড়ির ভাড়া বাবদ ফেরিটি পেয়েছিল মাত্র ৭৫ পয়সা। নব্বইয়ের দশকের আগ পর্যন্ত এ আরিচা ঘাট ছিল দেশের উত্তরবঙ্গ, দক্ষিণবঙ্গসহ পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলোর প্রবেশদ্বার।

১৯৬৪ সালে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক চালু হওয়ার পর উত্তরবঙ্গ, দক্ষিণবঙ্গসহ পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলোর যোগাযোগ স্থাপন হয়। তবে ১৯৯৭ সালে যমুনা সেতু চালু হওয়ার ফলে যমুনা নদী নাব্য হারিয়ে ফেললে উত্তরবঙ্গের গাড়িগুলো আরিচার বদলে যমুনা সেতু ব্যবহার করতে থাকে।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন

প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।
ফোন: ৯৮৫১৬২০, ৮৮৩২৬৪-৬, ফ্যাক্স: ৮৮০-২-৯৮৯৩২৯৫। ই-মেইল : e-mail: [email protected], [email protected]
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।