বুধবার ১২ মে ২০২১ ২৯ বৈশাখ ১৪২৮

২৩ হাজার বন্দিকে মুক্তি দিচ্ছে জান্তা সরকার
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: শুক্রবার, ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:১৪ পিএম আপডেট: ১২.০২.২০২১ ২:২৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

সংগৃহীত ছবি

সংগৃহীত ছবি

মিয়ামারের সরকারবিরোধী চলমান আন্দোলনের মধ্যেই ২৩ হাজার বন্দির সাজা মওকুফের ঘোষণা দিয়েছে জান্তা সরকার। শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) তাদের মুক্তি দেয়া হতে পারে।

রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যমে জেনারেল মিন অং হ্লাইংয়ের এ ঘোষণা এসেছে। তিনি বলেন, শন্তি, উন্নয়ন ও শৃঙ্খলাসহ মিয়ানমার যখন একটি নতুন গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করছে তখন বন্দিদের স্বাভাবিক জীবনে ফেরাতেই এমন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। মানবিক ও সহানুভূতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করতে বন্দিদের সাজা মওকুফ করা হয়েছে।

মিয়ানমারের ২৩ হাজার ৩১৪ জন এবং বিদেশি ৫৫ জন বন্দির সাজা মওকুফ করা হয়েছে বলে ঘোষণায় জানানো হয়েছে।

এই ঘোষণা এল যখন মিয়ানমারে অভ্যুত্থানে জড়িত থাকার অভিযোগ দেশটির একাধিক সামরিক কর্মকর্তা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।     

গত ১ ফেব্রুয়ারি অভ্যুত্থানের মাধ্যমে নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে মিয়ানমারের ক্ষমতার দখল নেয় সেনাবাহিনী। আটক করে নেত্রী সু চিকে, জারি করে এক বছরের জরুরি অবস্থা। এরপর থেকেই জান্তার বিরুদ্ধে জনরোষ বড় ধরনের বিক্ষোভে রূপ নিয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সাধারণ মানুষের বিক্ষোভে গুলিও চালিয়ে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। গুলিবদ্ধি হয়ে এক নারী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

সামরিক সরকারবিরোধী চলমান আন্দোলনে সমর্থন জানিয়ে যোগ দিয়েছে পুলিশও। এতে আন্দোলনের গতি বেড়েছে । 

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন

প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।
ফোন: ৯৮৫১৬২০, ৮৮৩২৬৪-৬, ফ্যাক্স: ৮৮০-২-৯৮৯৩২৯৫। ই-মেইল : e-mail: [email protected], [email protected]
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।