মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১ ৫ মাঘ ১৪২৭

সচেতনতাই জীবনে এনে দেয় সফলতা
এস এম মাহমুদ আরাফাত
প্রকাশ: সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০, ৭:৩৭ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

এস এম মাহমুদ আরাফাত

এস এম মাহমুদ আরাফাত

কর্মক্ষেত্রে আমরা সব সময়ই নেতৃত্বের গুরুত্ব অনুধাবন করে থাকি। সাথে সাথে যেকোনো সফলতার পেছনে নেতৃত্বের ভূমিকা গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করে থাকি। নেতৃত্বের বিষয়টাই মূলত কেন্দ্রীয় ভূমিকা রেখে থাকে। পণ্ডিত ব্যক্তিরা অনেক গবেষণা করেও নেতৃত্বের ধরনকে সুনির্দিষ্টভাবে সংজ্ঞায়িত করতে পারেন নাই। নেতার গুণাবলী, ব্যক্তিত্ব, মনস্তাত্ত্বিক বিষয়াবলী ইত্যাদি বিষয়গুলোকে সাধারণ কোনো মাপকাঠিতে স্থাপন করা সম্ভব নয়। আমরা কর্মক্ষেত্রে নেতৃত্ব দানের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ এবং কর্মশালা করতে দেখি, যেখানে মূলত লিডারশিপ বা নেতৃত্বের ওপর তাত্ত্বিক জ্ঞান এবং সফল নেতৃত্বের উদাহরণের ওপর আলোকপাত করা হয়। কিন্তু, এই প্রচেষ্টাগুলো তেমনভাবে গুণগত কোনো অর্জনের সহায়ক হয় বলে দেখা যায় না। তাহলে, নেতৃত্বের গুনগত উৎকর্ষতা কোথায়? 

একজন নেতা তার সহকর্মীদের নিয়ে একটা নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছতে চেষ্টা করে আর এই পুরো বিষয়টাতে সম্মুখীন হতে হয় অনেক বাধা-বিপত্তির এবং প্রয়োজন হয় গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেবার। এই জায়গাটাতে সহকর্মীদের আস্থা একজন নেতার জন্য অপরিহার্য এবং সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ। আর তাই, একজন নেতার ওপর তার সহকর্মীরা আস্থা রাখে তখনি যখন সেই মানুষটা হয় প্রকৃত বা অথেনটিক। কোন সফল নেতার অনুকরণের মাধ্যমে তার কিছু বিষয় রপ্ত করা যায় ঠিকই কিন্তু পরিবর্তিত বাস্তবতার প্রেক্ষিতে তা কখনোই সফলতার নিশ্চয়তা দেয় না। তাই একজন নেতৃত্ব দানকারী ব্যক্তির সফলতার পেছনে যে বিষয়টা অবিসংবাদিতভাবে কাজ করে তা হচ্ছে তার সামগ্রিক সচেতনতা বা সেলফ অ্যাওয়ারনেস।

একবার যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এর গ্র্যাজুয়েট, যারা কর্মক্ষেত্রে সফল নেতৃত্বের দৃষ্টান্ত রেখেছেন, এমন ৭৫ জনের ওপর একটা জরিপ করা হয়েছিল। সফল নেতৃত্বের বিষয়ে তারা বিভিন্ন মতামত দিলেও একটা বিষয়ে তারা সবাই একই কথা বলেছিল আর তাহলো সচেতনতা বা সেলফ অ্যাওয়ারনেস। তাদের অভিজ্ঞতা থেকে তারা যেইটা বলার চেষ্টা করেছে সেইটা হচ্ছে, কিছু সফলতা যেমন সুনাম, কর্মক্ষেত্রে অগ্রগতি আসলেও তা স্থায়ী হয় না যদি কোনো ব্যক্তির সচেতনতা বা সেলফ অ্যাওয়ারনেস না থাকে। 

এখন দেখা যাক, সচেতনতা বা সেলফ অ্যাওয়ারনেস বলতে মূলত কি বুঝায়। একজন ব্যক্তির সচেতনতা বা সেলফ অ্যাওয়ারনেস বলতে তার নিজ সীমাবদ্ধতা এবং সামর্থ্য সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান থাকা, সীমাবদ্ধতার জায়গা থেকে উত্তরণের প্রচেষ্টা, সমালোচনা থেকে গঠনমূলক শিক্ষা নেবার মানসিকতা এবং নিজের সীমাবদ্ধের ক্ষেত্রগুলোতে উপযুক্ত সহকর্মীর দক্ষতাকে ব্যবহার করে সমস্যার সমাধান করার সামর্থ্য এবং মানসিকতাকে ইঙ্গিত করে। 

যারা নেতৃত্বে সফল হয়ে থাকেন, তাদের সব সময় দেখা যায় মূল লক্ষ্যের সাথে মেধা ও মনন দিয়ে লেগে থাকতে আর খোলামেলা মানসিকতা নিয়ে শিষ্য বা সহকর্মীদের সাথে শেয়ার করতে। কোন ধরনের হীনমন্যতা বা জড়তা নিয়ে তারা কাজ করে না। অথেনটিক নেতাদের কিছু বিষয় বেশ লক্ষণীয় হয়ে থাকে। যেমন, এরা উচ্চমাত্রার মোটিভেশন ধারন করে। এই মোটিভেশনকে দুইভাগে ভাগ করা যায় আর তা হলো, বাহ্যিক এবং স্বকীয় মোটিভেশন। বাহ্যিক কিছু বিষয় আছে যা মোটামুটি সবাইকে মোটিভেট করে থাকে, যেমন পদোন্নতি, অর্থনৈতিক সুবিধা ইত্যাদি। কিন্তু, স্বকীয় মোটিভেশন বিষয়টা গুণগত। এইটা একটা মানুষের জীবন দর্শন, আত্মিক তৃপ্তির জায়গা থেকে এসে থাকে। উদাহরণ স্বরূপ, কোনও কাজের প্রতি আগ্রহ অনুভব করা, কাজকে প্রকৃত অর্থে উপভোগ করা, নিজস্ব উন্নয়নের তাগিদ ও সুযোগ থাকা ইত্যাদি। একজন নেতা, যখন বাহ্যিক এবং স্বকীয় মোটিভেশন অর্জন করতে পারে তখন এ তার পক্ষে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করার জন্য লেগে থেকে কাজ করা সম্ভব হয়, সহকর্মীদের দিকে খেয়াল রাখা এবং তাদের সাথে মিলে অভীষ্ট লক্ষে পৌঁছা সম্ভব হয়। 

ব্যক্তি পর্যায়ে সব মানুষেরই কিছু সাফল্য থেকে থাকে, কিন্তু কোনও দলের নেতৃত্বে থেকে কোনও চালেঙ্গিং লক্ষ্যে পৌঁছানোর তৃপ্তি এবং মাত্রা পুরটাই ভিন্ন। একজন অথেনটিক নেতা যখন তার লক্ষ্যে পৌঁছান, তখন খুব শিগগিরই সব ক্লান্তি দূর হয়ে পরিণত হয় একধরনের সন্তুষ্টিতে। আর এইটাই হচ্ছে অথেনটিক নেতার চ্যালেঞ্জ এবং প্রাপ্তি। জীবনে যে যতই অথেনটিক অর্থাৎ সচেতনতা বা সেলফ অ্যাওয়ারনেস এর বিকাশ ঘটাতে পারবে, কর্মক্ষেত্রে তা আনুপাতিকভাবে সফলতা এনে দেবে।

লেখক : স্কোয়াড্রন লিডার (অব) এস এম মাহমুদ আরাফাত;
এম বি এ, আই বি এ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন

প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।
ফোন: ৯৮৫১৬২০, ৮৮৩২৬৪-৬, ফ্যাক্স: ৮৮০-২-৯৮৯৩২৯৫। ই-মেইল : e-mail: [email protected], [email protected]
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।