বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১২ ফাল্গুন ১৪২৭

ফের বেড়েছে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের লেনদেন
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: রোববার, ৮ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০৯ পিএম আপডেট: ০৮.১১.২০২০ ১:০৪ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের (এমএফএস) মাধ্যমে লেনদেন বেড়েছে। করোনায় মানুষ ঐতিহ্যবাহী ব্যাংকিংয়ের চেয়ে ডিজিটাল ব্যাংকিংকে বেশি আগ্রহী হওয়ায় এর পরিমাণ বেড়েছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

এমএফএস লেনদেন অবশ্য ঈদের পরে আগস্ট মাসে কমে গিয়েছিলো। কিন্তু সেপ্টেম্বরে আবার আভাস দিয়েছে সামনের দিনগুলোতে নগদ টাকাবিহীন লেনদেন আবার বাড়বে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সেপ্টেম্বর মাসে মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসের মাধ্যমে লেনদেন হয়েছে ৪৯,১২১ কোটি টাকা। যা আগের মাসের তুলনায় ১৬ দশমিক ৬০ শতাংশ বেশি এবং আগের বছরের একই সময়ের চেয়ে ৩৮ দশমিক ৬৩ শতাংশ বেশি।

দেশে প্রায় এক দশক আগে এমএফএস চালু হলেও জুলাই মাসের পরে লেনদেনের পরিমান এটি সর্বোচ্চ দ্বিতীয়। জুলাই মাসে লেনদেন হয়েছে ৬২ হাজার ৯৯৯ কোটি টাকা। দেশে এখন ১৫টি প্রতিষ্ঠান এমএফএস সেবা দিচ্ছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, দিন দিন ডিজিটাল ব্যাংকিং মানুষের মধ্যে জনপ্রিয় হচ্ছে। সাম্প্রতিককালের লেনদেন গ্রাহকের মনোভাবকে পরিবর্তন করেছে।

মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে সরকার চলতি বছরের মার্চ থেকে মে মাস পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা করে মানুষ তখন ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবা গ্রহণে কিছুটা অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছিলো। তবে এমএফএস লেনদেনের মাধ্যমে মানুষ ধীরে ধীরে ডিজিটাল লেনদেনকে অভ্যাসে পরিণত করেছে।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন

প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।
ফোন: ৯৮৫১৬২০, ৮৮৩২৬৪-৬, ফ্যাক্স: ৮৮০-২-৯৮৯৩২৯৫। ই-মেইল : e-mail: [email protected], [email protected]
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।