বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ ৭ কার্তিক ১৪২৭

উমর গুলের অশ্রুসিক্ত বিদায়
ক্রিড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২০, ১:২৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

সংগৃহীত ছবি

সংগৃহীত ছবি

এবার সবধরনের ক্রিকেট থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন পাকিস্তানের অন্যতম সেরা পেসার উমর গুল। এর আগে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছেড়েছেন তিনি, তবে খেলে যাচ্ছিলেন ঘরোয়া ক্রিকেটে।

এদিকে শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপ থেকে তার দল বেলুচিস্তানের বিদায় নিশ্চিত হওয়ার পর অবসরের ঘোষণা দেন ৩৬ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।

তবে ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচটিতে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়া হয়নি উমর গুলের। আগে ব্যাট করে তার দল বেলুচিস্তান করেছিল ১৬১ রান। জবাবে মাত্র ১০.৪ ওভারেই জয়ের লক্ষে পৌঁছে যায় সাউদার্ন পাঞ্জাব, এর মধ্যে গুলের ২ ওভার থেকেই ৩৪ রান নিয়েছে তারা।

শেষমেশ কান্নাভেজা চোখে মাঠ ছাড়তে হয়েছে গুলকে। দীর্ঘ প্রায় ২০ বছরের ক্যারিয়ারে শেষ ম্যাচটি খেলে ফেলার পর নিজের আবেগ সংবরণ করতে পারছিলেন না এ পেসার। সতীর্থ-প্রতিপক্ষ দলের খেলোয়াড়রা তাকে সান্ত্বনা দেয়ার চেষ্টা করেন। দুই দলের খেলোয়াড়রা মিলে দেন গার্ড অব অনার।

পরে বিদায়ী বক্তব্যে উমর গুল বলেন, প্রায় দুই দশক ধরে নিজের ক্লাব, শহর, প্রদেশ এবং দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করতে পারাটা অনেক বড় সম্মানের। আমি শুরু থেকে শেষপর্যন্ত ক্রিকেট উপভোগ করেছি। এটা আমাকে কঠোর পরিশ্রম, শ্রদ্ধা, আত্মনিবেদন ও অধ্যবসায়ের শিক্ষা দিয়েছে। এ যাত্রায় আমি এমন অনেক মানুষের সঙ্গ পেয়েছি, যারা সর্বাত্মক সহযোগিতা করেছে। আমি তাদেরকে এবং আমার সতীর্থদের ধন্যবাদ জানাতে চাই।

উমর গুল আরও বলেন, আমার পুরো ক্যারিয়ারে সমর্থন দিয়ে যাওয়া ভক্তদের আমি অনেক ধন্যবাদ জানাই। তারা আমার জন্য বড় অনুপ্রেরণা ছিলেন, বিশেষ করে যখন কোনোকিছু আমার পক্ষে ছিল না।

সবশেষ আমি আমার পরিবারকে ধন্যবাদ জানাতে চাই, যাদের সাহস-অনুপ্রেরণায় আমি ক্রিকেট খেলতে পেরেছি এবং আত্মত্যাগের কল্যাণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ সফর করতে পেরেছি। আমি কিছুদিন ক্রিকেট থেকে বাইরে পরিবারের সঙ্গে থাকবো। তবে একেবারে ক্রিকেটের বাইরে থাকা অনেক কঠিন। আবার ফিরবো ক্রিকেটে।

এদিকে ২০০১-০২ মৌসুমে মাত্র ১৭ বছর বয়সে পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল উমর গুলের। এরপর জাতীয় দলে নাম লেখাতে মাত্র ৯টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলতে হয় এই ক্রিকেটারের।

২০০৩ সালে বাংলাদেশ দলের পাকিস্তান সফরে টেস্ট অভিষেক হয় ঝাঁকড়া চুলের এ পেসারের। একই মাসে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পথচলা শুরু করেন তিনি।

পাকিস্তানের হয়ে সবশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচটি প্রায় চার বছর আগে খেলেছেন উমর গুল। ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে ইংল্যান্ড সফরে শেষবার চাঁ-তারার পতাকার প্রতিনিধি হয়েছিলেন তিনি।

প্রায় এক যুগের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে ৪৭ টেস্ট, ১৩০ ওয়ানডে ৬০ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন গুল। যেখানে তার শিকার যথাক্রমে ১৬৩, ১৬৯ ও ৮৫টি উইকেট।

এছাড়া ঘরোয়া ক্রিকেটের প্রায় ২০ বছরের ক্যারিয়ারে ১২৫ প্রথম শ্রেণির ম্যাচ, ২১৩ লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ ও ১৬৭ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন ডানহাতি এ পেসার। সবমিলিয়ে তার ঝুলিতে জমা পড়েছে ৯৮৭টি উইকেট।

এদিকে ২০০৯ সালে পাকিস্তানকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতানোর পথে আসরের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী হয়েছিলেন গুল।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »



সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন

প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।
ফোন: ৯৮৫১৬২০, ৮৮৩২৬৪-৬, ফ্যাক্স: ৮৮০-২-৯৮৯৩২৯৫। ই-মেইল : e-mail: [email protected], [email protected]
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।