বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ ২০ শ্রাবণ ১৪২৭

এফডিসিতে ৫টি গরু কোরবানি দেবেন পরীমনি
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশ: বুধবার, ২৯ জুলাই, ২০২০, ৩:১৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

এফডিসির সহশিল্পীদের জন্য গেল চার বছর ধরে কোরবানি দেয়া শুরু করেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। প্রথম বছর একটি দিয়ে শুরু হলেও পরের বছর দুইটা এবং তার পরের বছর তিনটা গরু কোরবানি দেন তিনি। সর্বশেষ গেল বছর ৪টি গরু কোরবানি দিয়েছেন এ নায়িকা।

সেই ধারাবাহিকতায় এবারে চলচ্চিত্রের সহশিল্পীদের সঙ্গে ঈদ পালন করতে ৫টি গরু কোরবানি দিতে যাচ্ছেন পরীমনি। এফডিসির মধ্যেই কোরবানি করা হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করলেন পরীমনি নিজেই।

পরীমনি বলেন, ‘এফডিসির মানুষগুলোর সঙ্গে বছরের সবচেয়ে বেশি সময় কাটে। তারা আমার সহকর্মী, প্রিয়মানুষ। তাদের সঙ্গে এবারও কোরবানি ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে চাই। এবারে ৫টি গরু কোরবানি হবে ইনশাল্লাহ। ঈদের নামাজের পর এফডিসিতে গরুগুলো কোরবানি করা হবে।’

পরীমনি আরও বলেন, মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে কোরবানি নিয়ে এবার একটু বেশি সতর্কতা অবলম্বন করতে হচ্ছে। পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনেই এ বছর ৫টি গরু কোরবানি দেয়া হবে। সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি।

এদিকে, পরীমনি অভিনীত চয়নিকা চৌধুরীর প্রথম সিনেমা ‘বিশ্বসুন্দরী’ মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। এখানে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক সিয়াম আহমেদ। সিয়ামের বিপরীতে ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ নামের একটি ছবিতেও কাজ করছেন পরী। এ ছবির শুটিং এখনো শেষ হয়নি। অন্যদিকে তরুণ পরিচালক ইফতেখার শুভ পরিচালিত সরকারি অনুদানের ‘মুখোশ’ নামের নতুন একটি ছবিতে অভিনয় জন্য চুক্তিবন্ধ হয়েছেন পরীমনি।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »



সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন

প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।
ফোন: ৯৮৫১৬২০, ৮৮৩২৬৪-৬, ফ্যাক্স: ৮৮০-২-৯৮৯৩২৯৫। ই-মেইল : e-mail: [email protected], [email protected]
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।