সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ ২২ আষাঢ় ১৪২৭

লঞ্চডুবির ঘটনায় শোকাহত সাকিব
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৩০ জুন, ২০২০, ১০:০৪ এএম | অনলাইন সংস্করণ

লঞ্চডুবির ঘটনায় শোকাহত সাকিব

লঞ্চডুবির ঘটনায় শোকাহত সাকিব

রাজধানীর সদরঘাটে ‘ময়ূর-২’ ধাক্কায় শতাধিক যাত্রী নিয়ে ডুবে গেছে ‘মর্নিং বার্ড’ লঞ্চ। ভয়াবহ এ দুর্ঘটনায় সর্বশেষ ৩২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছেন আরও অনেকে। আর করোনার মাঝে দেশে এমন ঘটনায় নিজেকে সান্ত্বনা দেওয়ার ভাষা খুঁজে পাচ্ছেন না সাকিব আল হাসান। এমন ঘটনা যেন আর কখনো না ঘটে তার প্রত্যাশা করছেন তিনি।

নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে এমনটি জানিয়েছেন সাকিব। এছাড়া মৃতরা যেন পরপারে ভালো থাকেন সেই কামনাও করেছেন তিনি।

সাকিব লিখেন, প্রতিটি শোক সংবাদ হতাশার, বেদনার। গত চারমাস ধরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিনই মানুষ চলে যাচ্ছে না ফেরার দেশে। এর মধ্যে আজ আবার বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে লঞ্চ ডুবে এখন পর্যন্ত ৩২ জন মানুষের প্রাণহানি এবং এখন পর্যন্ত বেশ কিছু যাত্রী নিখোঁজ রয়েছে। তাদের স্বজনদের আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠছে চারপাশ। সত্যি বলতে আমি কোনো ভাবেই নিজেকে সান্ত্বনা দিতে পারছি না।

পুরো পৃথিবীর এই ভয়ংকর ক্রান্তিকালে এমন দুর্ঘটনার কোনো সান্ত্বনা বা ব্যাখ্যা আমার জানা নেই। ভবিষ্যতে এমন অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা আর একটি যেন না হয় এমন বাংলাদেশ দেখবার প্রত্যাশা করি। করোনা সহ সকল দূর্যোগ কেটে যাবে ইনশাআল্লাহ।

মাত্র ৩০ সেকেন্ড দূরের পথে থেকেও, সারাজীবনের জন্য পরপারে পাড়ি জমানো সকল আত্মার প্রতি শান্তি ও সৃষ্টিকর্তার নিকট জান্নাত কামনা করছি।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »



সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন

প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।
ফোন: ৯৮৫১৬২০, ৮৮৩২৬৪-৬, ফ্যাক্স: ৮৮০-২-৯৮৯৩২৯৫। ই-মেইল : e-mail: [email protected], [email protected]
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।