শনিবার ৪ জুলাই ২০২০ ১৯ আষাঢ় ১৪২৭

চট্টগ্রাম- ১৬ আসনের সাংসদ মোস্তাফিজ সপরিবারে করোনায় আক্রান্ত
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: শুক্রবার, ৫ জুন, ২০২০, ২:৫৯ পিএম আপডেট: ০৫.০৬.২০২০ ৫:১৫ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রাম- ১৬ আসনের সাংসদ মোস্তাফিজ সপরিবারে করোনায় আক্রান্ত

চট্টগ্রাম- ১৬ আসনের সাংসদ মোস্তাফিজ সপরিবারে করোনায় আক্রান্ত


চট্টগ্রামের বাঁশখালী আসনের সাংসদ মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী ও পরিবারের ছয় সদস্যসহ তার বাড়ির মোট ১১ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

তারা চট্টগ্রাম শহরের নাসিরাবাদ রহমান নগর এলাকার বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে সাংসদের ব্যক্তিগত সহকারী মোস্তাফিজুর রহমান রাসেল জানিয়েছেন।

তারা করোনাভাইরাস পরীক্ষার ফলাফল মঙ্গলবার জানতে পারলেও বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশ পায় শুক্রবার।

রাসেল বলেন, সাংসদ মোস্তাফিজুর, তার স্ত্রী, তিন মেয়ে, এক নাতনি ও এক জামাতা, তিন গৃহ পরিচারিকা ও তার নিজের কোভিড-১৯ পরীক্ষার ফল ‘পজেটিভ’ এসেছে।

“আমরা সবাই এখনও সুস্থ আছি। কারো তেমন কোনো সমস্যা দেখা যায়নি। বাড়িতে থেকেই চিকিৎসকের পরামর্শ মতে চিকিৎসা নিচ্ছি, স্যারও ভালো আছেন।”

চট্টগ্রামের সাংসদদের মধ্যে মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন। ১ জুন সাংসদসহ তার পরিবারের সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

এবিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বিডিনিউজ টোয়েনিন্টফোর ডটকমকে বলেন, রেজিস্ট্রেশন নম্বর অনুসারে নমুনা সংগ্রহ ও ফল জানিয়ে দেওয়া হয়।

“আমরা ব্যক্তির নাম দেখি না। তবে তারা কেউ যোগাযোগ করেননি। হয়ত নিজেরা চিকিৎসা নিচ্ছেন “

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »



সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন

প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।
ফোন: ৯৮৫১৬২০, ৮৮৩২৬৪-৬, ফ্যাক্স: ৮৮০-২-৯৮৯৩২৯৫। ই-মেইল : e-mail: [email protected], [email protected]
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন
সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম রতন
প্রকাশক: স্বদেশ গ্লোবাল মিডিয়া লিমিটেড-এর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক আবরন প্রিন্টার্স,
মতিঝিল ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ১০, তাহের টাওয়ার, গুলশান সার্কেল-২ থেকে প্রকাশিত।